সফলতা নিয়ে মনীষীদের যত কথা

ফারজানা আকসা জহুরা

সোমবার, মে ৪, ২০২০ ৬:২৭ অপরাহ্ণ

বিখ্যাত আমেরিকান লেখক, সমাজ কর্মী ও চলচ্চিত্রকার হেলেন অ্যাডামস কেলার একজন বাক-শ্রবণ ও দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ছিলেন। অথচ মাত্র চব্বিশ বছর বয়সে তিনি স্নাতক ডিগ্রি এবং পরবর্তীতে ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জন করেন। শুধু তাই নয় , তিনি ১২টির অধিক বই লেখার পাশাপাশি নিজ জীবনের ওপর ১৯১৯ সালে একটি একটি চলচ্চিত্র নির্মাণ করেন। যে চলচ্চিত্রে তিনি নিজেই অভিনয় করেছিলেন।প্রতিবন্ধী হয়েও তিনি ছিলের পরিপূর্ণ একজন সফল মানুষ। জীবনের সফলতা সম্পর্কে তিনি বলেছেন ; “Your success and happiness lies in you. Resolve to keep happy, and your joy and you shall form an invincible host against difficulties.”

অর্থাৎ আপনার সাফল্য এবং সুখ আপনার মধ্যে নিহিত। সুখী রাখার সংকল্প করুন, এবং আপনার আনন্দ এবং আপনার অসুবিধার বিরুদ্ধে লড়াই করুন। মূলত অদম্য ইচ্ছাশক্তি বা প্যাশনই ছিল হেলেন কেলারের সফলতার মূলমন্ত্র। যা তার কর্মস্পৃহা বৃদ্ধি করে, সামনে এগিয়ে যাওয়ার অনুপ্রেরণা যুগিয়েছে। বিখ্যাত কবি রিচার্ড এসটি জন বলেছেন ; “সফলতা কোনো একমুখী রাস্তা নয় বরং এটি একটি অবিরত চলা।”

কোনো মানুষই একবারেই সফল হতে পারে না। প্রতিটি সফল মানুষের পিছনে রয়েছে অজস্র ব্যর্থতার গল্প। সফল উদ্যোক্তা, রাজনীতিবিদ, শিল্পী, লেখক, বিজ্ঞানী , যার কথাই বলিনা কেন, সবাইকে ব্যর্থতার কঠিন পথ পাড়ি দিয়ে তবেই সফল হতে হয়েছে। আবার এই সাফল্য পাওয়ার পরও অনেকে আবার ব্যর্থ হয়েছেন। আবারও তাঁরা উঠে দাঁড়িয়েছেন।
এই সম্পর্কে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে আমেরিকান সেনাবাহিনীর জেনারেল জর্জ এস, প্যাটন বলেন ; একজন মানুষ এখন কতটা উপরে আছে, তা দিয়ে আমি তার সাফল্য মাপি না। একদম নিচে পড়ে যাওয়ার পর সে নিজেকে কতটা ওপরে তুলতে পারেছে – সেটাই আসল কথা।”

পৃথিবীর সকল সফল মানুষের মধ্যে একটা বড় আশ্চর্য মিল হলো, এরা সকলেই আত্মবিশ্বাসী ও প্রচন্ড মানসিক শক্তির অধিকারী ছিলেন। যে কারণে তারা নিজেদের ভেতরে লালন করা স্বপ্নগুলোকে পৃথিবীর আলো দেখাতে পেরেছেন। আর এই লক্ষ্যে চলার পথের কাজগুলো আনন্দের সাথে করে গেছেন। বিনিময় স্বরুপ ‘সফলতা’ পেয়েছেন।
ঠিক এমনই একজন ব্যক্তি হলেন দক্ষিণ আফ্রিকার বর্ণবাদবিরোধী আন্দোলনের নেতা, শান্তিতে নবেল বিজয়ী নেলসন ম্যান্ডেলা। যিনি ২৭টা বছর জীবন কারাবাসে কাটিয়ে ছিলেন। তবুও হার মানেন নাই। তার জীবনে সফলতা সম্পর্কে বলেছেন; “আমাকে আমার সফলতা দ্বারা বিচার করো না; ব্যর্থতা থেকে কতবার আমি ঘুরে দাড়িয়েছি তা দিয়ে আমাকে বিচার করো।“ বিশ্বখ্যাত লেখক ও ঔপন্যাসিক মার্ক টোয়েনের ভাষায়; “জীবনে সফল হতে চাইলে দু’টি জিনিস প্রয়োজন: জেদ আর আত্মবিশ্বাস”।

সফল মানুষেরা যত বড় ব্যর্থতার মুখেই পড়েন না কেন, কখনওই তাঁরা নিজের উপরে বিশ্বাস হারান না। তারা ভাবেন, নতুন কাজ শুরুতে ভুল হতেই পারে, ফলাফল আশানুরূপ নাও হতে পারে কিন্তু সেজন্য হতাশ হলে চলবে না। তারা সকল বিষয়কে ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গিতে বিচার বিশ্লেষণ করেন। বিখ্যাত মার্কিন রক মিউজিসিয়ান বন জোভির ভাষায় ; “সাফল্য মানে ৯ বার পড়ে গিয়ে ১০ম বার উঠে দাঁড়ানো।”

জীবনের শুরুতেই আপনি সফলতার দেখা নাও পেতে পারেন । তাই বলে হতাশ হলে চলবে না। প্রচন্ড ধৈর্য আর আত্মবিশ্বাস নিয়ে অবিরাম প্রচেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে। এ্যাপলের প্রতিষ্ঠাতা স্টিভ জবসের ভাষায় ; রাতারাতি সাফল্য বলতে কিছু নেই। মনোযোগ দিলে দেখবে সব সাফল্যই অনেক সময় নিয়ে আসে”!

জীবনে সফলতা পেতে হলে প্রথমে নিজের দক্ষতা ও আনন্দের বিষয়টি খুঁজে বের করে তারপর সেই বিষয়ে নিয়ে অনবরত কাজ করে যেতে হবে। তাই বলা যায়, ‘সাফল্য হচ্ছে যা তুমি চাও এবং সুখ হচ্ছে তোমার সেই চাওয়া।

শেষে বিখ্যাত আইরিশ নাট্যকার, ঔপন্যাসিক , লেখক ও কবি অস্কার ওয়াইল্ডের উদ্ধৃতি দিয়ে বলবো ; সাফল্য একটি বিজ্ঞান। সঠিক উপাদান মেশালে তুমি সঠিক ফলাফল পাবে”।

লেখকঃ ফারজানা আকসা জহুরা, ফ্রান্স প্রবাসী

image_printPrint

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

মুজিব বর্ষ

মুজিববর্ষ

সংবাদ আর্কাইভ

নামাজের সময় সূচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৫৪
  • ১২:০৭
  • ৪:৪৩
  • ৬:৫৩
  • ৮:১৮
  • ৫:১৮

ক্যালেন্ডার

July 2020
M T W T F S S
« Jun    
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031